premer kobita bangla lekha

premer kobita bangla lekha


premer kobita bangla lekha,valobashar kobita Bangla, Premer kobita Bangla,premer kobita in Bangla,premer kobita Bangla collection, Bangla sad valobashar kobita, Bangla valobashar kobita lyrics, Premer kobita Bangla download,ভালবাসার কবিতা,লবাসার কবিতা সমগ্র,ভালবাসার কবিতা sms,বাবা মেয়ের ভালবাসার কবিতা,সুনীলের ভালবাসার কবিতা,


আমার বিষাদ নামা

মনিরুজ্জামান অনিক


কতোটুকু জলে হেঁটেছি আমি! 

কতটুকু বাকি হাটবার! 

হিসেবের খাতায় দোদুল্যমান জ্যামিতি.. .. 

পড়ে আছে থালা,বাটি অবশিষ্ট আহার।।

 

রাস্তায় মাপি সীমাহীন ক্লান্তি.. .. 

দুয়ারে মোর জ্বলছে আগুন।

কোন সূর্যের উত্তাপ খুঁজি! 

শীতনিদ্রায় রেশমি ওম।

 

কোন বালিকার সুবাসিত চুলে, 

মাতোয়ারা হয় শর্বরী,

কোন আসমানের তারা খসে পড়ে, 

বুকে লয়ে তার বিষাদ লহরী। 

 

কেউ কারো খবর রাখেনা…

দু কদম সামনেই আকাশ।

আয়নাতে সে মুখ ঢেকে যায়..

বক্ষবিদীর্ণ সার্কাস।

 

কেউ খুঁজে না অমিয় শুধা, 

শরাবেই পায় মুক্তি।

হাত বাড়ালেই হাত ছোঁয়া যায়….. 

অসময়ের বৃথা যুক্তি।

 

আমিও আজ ঠাঁই খুঁজি পথে…. 

ধুলোমাখা চেহারা।

জীর্ণ শীর্ণ ললাটখানি মোর…

খুঁজে পায়না ইশারা।


আকাশের সমীপে প্রশ্ন

মনিরুজ্জামান অনিক


আমাদের কি কখনো প্রেম হয়েছিলো?

আজকাল আকাশে উড়িয়ে দিই সেই প্রশ্ন।

আকাশ নিশ্চুপ হয়ে থাকে,,,

ঠিক সন্ধ্যা বেলায় আমার চিলেকোঠার বারান্দায়

আকাশ পত্র পাঠায়____

সে জানায়,কবি! তোমায় বৃষ্টি দিলাম যত্ন করে রেখো।

ভালোবাসা কি আমি জানিনা।

ভালোবাসা মানবের সৃষ্টি,মানবের মুক্তি,

মানবের ধ্বংস, মানবের কৃষ্টি।।

আমি শুধু জানি মন খারাপে কষ্টগুলো বৃষ্টির সাথে ভাসিয়ে দিতে হয়,ঝরাতে হয় অঝোর ধারে।। 

কবি, তোমাকে দিলাম একমুঠো বৃষ্টি!

মনখারাপে তোমার চোখে বৃষ্টির ঠাঁই দিয়ো।।

 

আমি আবারো পত্র দিবো…

তোমার মন খারাপে,কোন এক সন্ধ্যেবেলায় তোমার চিলেকোঠার বারান্দায়।


আমার পরী বানু

মনিরুজ্জামান অনিক


আমি অইলাম কাঁদা মাটির লাহান।

গইল্যা যাই যহন তহন।

আমারে দিয়া তুমি কখন সখন মাটির পুতুল বানাও,

কখন বানাও দেওলিয়া নদী ভাঙনের লাহান।

আবার কখন বানাও আসমানের চান।

আমি এইবার তোমার ঘুড়ি হইবার চাই।

আকাশে উড়ুম শা শা শব্দে, বাতাস কাটুম মনের আনন্দে।

লাটাই তোমার হাতেই থাকবো….. 

সন্ধ্যা হইলেই তুমি টান দিবা সুতোয়, 

আমি বাধ্য মানুষের লাহান নাইম্মা আইমু  তোমার ঘরে।

সারারাইত দুইজন চান্দের সাথে আলাপ করুম।

তুমি হাসবা আমি দেহুম।

জোৎস্নাও তোমার হাসি দেইখ্যা লজ্জা পাইবো।

আমি জোৎস্নারে কইমু, ” ও জোৎস্না লজ্জা পাও কেন?” 

জোৎস্না কইবো তোমার সামনে এতো আলো, আমার পশর দিতে লজ্জা লাগে।

লজ্জায় জোৎস্না চইলা যাইবো।

তুমি আমারে, এইবার পাখি বানাইয়া দিয়ো, 

আমি উইড়া উইড়া মেঘরে কইমু ও মেঘ দেখসো আমার একটা পরীর লাহান মানুষ আছে।


এখন তুমি কেমন আছো জানতে চাই?

মনিরুজ্জামান অনিক


চারপাশে এতো আলো,

আমার কেন অন্ধকার? 

সেই মানুষটা কোথায় এখন!

যেই মানুষ খুব দরকার।।

 

কতো কথা জমা ছিলো, 

হয়নি বলা তার সাথে।

কথা শুরুর আগেই যে সে

ইতি টানে কোন দোষে? 

 

একটা জোৎস্না তোলা ছিলো, 

তার কপালের মাঝখানে।

সেই জোৎস্না আজ অমাবস্যা, 

কে জানে তার কি মানে?

 

প্রেম বিরহের অনল পুষে

দিচ্ছি পাড়ি পথখানি।

সে জানেনা এখন ও সে

আমার কাছে খুব দামি।

 

শেষ বেলাতে থেমে গেছে

ঘড়ির কাটার সময় রেখা,

একটা ইচ্ছে পুষে রাখি, 

একবার যেনো পাই দেখা! 

 

এখন আমার দিন ফুরালো,

কেমন আছো জানতে চাই।

তুমি ও কি আমার মতোই, 

প্রেম অনলে হচ্ছো ছাই?


একটা পরিত্যক্ত নাম চাই আমার

মনিরুজ্জামান অনিক


আমার একটা নাম থাকা দরকার!

সুন্দর সুশ্রী একটা নাম।

এ শহরে নামহীন কারোর ঠাঁই নেই,

আমারো মেলেনি ঠাঁই। 

ভগ্ন পোড়া বাড়িতে আমার জন্ম।

জন্মের পর আমার কোন নাম দেয়নি কেউ।

এই যে বেড়ে উঠছি নামহীন এক অভিশাপ নিয়ে

হাঁটছি তো হাঁটছিই দু’দন্ড জিরোন নেই পায়ে।

কোথাও কোন নাম অবশিষ্ট নেই।

যাকে জিজ্ঞেস করি সেই বলে নামের বাজার বেশ চড়া। আমার একটা সস্তা নাম হলেও চলবে।

কোন মৃত মানুষের নাম,কোন পরিত্যক্ত নাম কিংবা নিখোঁজ হওয়া কোন নাম!

যে কোন একটা নাম হলেই চলবে।

আমার কোন আপত্তি নেই তাতে।

তবুও একটা নাম চাই আমার।

একটা নাম নিয়ে আরো কয়েকটা দিন বাঁচতে চাই।

তোমাদের এ শহরে কিছুদিন না হয় আমাকে রেখো!

আমিও থাকতে চাই তোমাদের পাশে।

আমার একটা নামের প্রয়োজন।

একটা নাম চাই,যে কোন পরিত্যক্ত নাম হলেও চলবে। হবে একটা নাম তোমাদের শহরে??


Recent Posts

50% LikesVS
50% Dislikes