bengali love poems

Bengali love poems


bengali love poems,love poems in bengali,bhalobasar kobita,শ্রেষ্ঠ প্রেমের কবিতা,রোমান্টিক প্রেমের কবিতা,সকালের প্রেমের কবিতা,প্রথম প্রেমের কবিতা,বাংলা প্রেমের কবিতা,রোমান্টিক কবিতা সমগ্র,


ব্যক্তিগত ব্যাপার – তসলিমা নাসরিন  ভুলে গেছো যাও,


ব্যক্তিগত ব্যাপার – তসলিমা নাসরিন  ভুলে গেছো যাও, 

 এরকম ভুলে যে কেউ যেতে পারে,

 এমন কোনও অসম্ভব কীর্তি তুমি করোনি,

 ফিরে আর তাকিও না আমার দিকে, আমার শূন্যতার দিকে।

 আমি যেভাবেই আছি, যেভাবেই থাকি এ আমার জীবন, তুমি এই

 জীবনের দিকে আর করুণ করুণ চোখে তাকিয়ে না কোনওদিন।

 ভুলে গেছো যাও,

 বিনিময়ে আমি যদি ভুলে না যাই তোমাকে, যেতে না পারি

 সে আমার ব্যক্তিগত ব্যাপার, তুমি এই ব্যাপারটি নিয়ে ঘেঁটো না,

 এ আমার জীবন, কার জন্য কাঁদি, কাকে গোপনে ভালোবাসি

 জানতে চেও না।

 ভুলে গেলে তো এই হয়, ছেড়ে চলে গেলে তো এই-ই হয় — যার যার জীবনের মতো

 যার যার ব্যক্তিগত ব্যাপারও যার যার হয়ে ওঠে।

 তুমি তো জানোই সব, জেনেও কেন বলো যে মাঝে মাঝে যেন

 খবর টবর দিই কেমন আছি!

 আমার কেমন থাকায় তোমার কীই বা যায় আসে!

 যদি খবর দিই যে ভালো নেই, যদি বলি তোমাকে খুব দেখতে ইচ্ছে করছে,

 যদি বলি তোমার জন্য আমার মন কেমন করছে,

 শরীর কেমন করছে!

 তুমি তো আর ছুটে আসবে না আমাকে ভালোবাসতে!

 তবে কী লাভ জানিয়ে, কী লাভ জানিয়ে যে আমি অবশেষে সন্ন্যাসী হলাম!


   ব্যস্ততা – তসলিমা নাসরিন  তোমাকে বিশ্বাস করেছিলাম, যা কিছু নিজের ছিল দিয়েছিলাম,


 ব্যস্ততা – তসলিমা নাসরিন  তোমাকে বিশ্বাস করেছিলাম, যা কিছু নিজের ছিল দিয়েছিলাম, 

 যা কিছুই অর্জন-উপার্জন ! 

 এখন দেখ না ভিখিরির মতো কেমন বসে থাকি ! 

 কেউ ফিরে তাকায় না।

 তোমার কেন সময় হবে তাকাবার ! কত রকম কাজ তোমার ! 

 আজকাল তো ব্যস্ততাও বেড়েছে খুব।

 সেদিন দেখলাম সেই ভালবাসাগুলো

 কাকে যেন দিতে খুব ব্যস্ত তুমি,

 যেগুলো তোমাকে আমি দিয়েছিলাম।


 হিসেব – তসলিমা নাসরিন  কতটুকু ভালোবাসা দিলে,  


 হিসেব – তসলিমা নাসরিন  কতটুকু ভালোবাসা দিলে, 

 ক তোড়া গোলাপ দিলে,

 কতটুকু সময়, কতটা সমুদ্র দিলে,

 কটি নির্ঘুম রাত দিলে, ক ফোঁটা জল দিলে চোখের — সব যেদিন ভীষণ আবেগে

 শোনাচ্ছিলে আমাকে, বোঝাতে চাইছিলে আমাকে খুব ভালোবাসো, আমি বুঝে নিলাম তুমি

 আমাকে এখন আর একটুও ভালোবাসো না।

 ভালোবাসা ফুরোলেই মানুষ হিসেব কষতে বসে, তুমিও বসেছো।

 ভালোবাসা ততদিনই ভালোবাসা

 যতদিন এটি অন্ধ থাকে, বধির থাকে,

 যতদিন এটি বেহিসেবী থাকে।


   যেহেতু তুমি, যেহেতু তোমার – তসলিমা নাসরিন


 যেহেতু তুমি, যেহেতু তোমার – তসলিমা নাসরিন  তোমার কপালের ভাঁজগুলোকেও আমি লক্ষ করছি যে আমি ভালোবাসি, 

 ভালোবাসি কারণ ওগুলো তোমার ভাঁজ,

 তোমার গালের কাটা দাগটাকেও বাসি, যেহেতু দাগটা তোমার

 আমার দিকে ছুঁড়ে দেওয়া তোমার বিরক্ত দৃষ্টিটাকেও ভালোবাসছি,

 যেহেতু দৃষ্টিটা তোমারই।

 তোমার বিতিকিচ্ছিজ্ঞর টালমাটাল জীবনকেও পলকহীন দেখি, তোমার বলেই দেখি।

 তোমাকে দেখলেই আগুনের মত ছুটে যাই তোমার কাছে, তুমি বলেই,

 হাত বাড়িয়ে দিই, তুমি বলেই তো,

 হাত বাড়িয়ে রাখি, সে হাত তুমি কখনও স্পর্শ না করলেও রাখি, সে তুমি বলেই তো।


  যখন নেই, তখন থাকো – তসলিমা নাসরিন


 যখন নেই, তখন থাকো – তসলিমা নাসরিন  যখন আমার সঙ্গে নেই তুমি, 

 আমার সঙ্গে তুমি তখন সবচেয়ে বেশি থাকো।

 আমি হাঁটি, পাশাপাশি মনে হয় তুমিও হাঁটছো,

 তোমাকে সঙ্গে নিয়ে বাজারে যাই,

 যা যা খেতে পছন্দ করো, কিনি, তুমি নেই জেনেও কিনি।

 রাঁধি যখন, দরজায় যেন হেলান দিয়ে দাঁড়িয়ে আছো,

 মনে মনে কথা বলি।

 খেতে বসি, ভাবি তুমিও বসেছো।

 যা কিছুই দেখি, পাশে দাঁড়িয়ে তুমিও দেখছো,

 শুনি, শুনছো।

 তত্ত্বে তর্কে, গানে গপ্পে পাশে রাখি তোমাকে।

 তুমি সারাদিন সঙ্গে থাকো,

 যতক্ষণ জেগে থাকি, থাকো,

 ঘুমোলে স্বপ্নের মধ্যে থাকো।

 তুমি নেই, অথচ কি ভীষণভাবে তুমি আছো।

 তুমি যখন সত্যিকার সঙ্গে থাকো, তখন কিন্তু এত বেশি সঙ্গে থাকো না।


munjatপ্রিয় পাঠকগণ। আসা করি কবিতা গুলি আপনাদের ভালো লেগেছে। তাই আপনাদের কাছে আমার বিশেষ একটাই অনুরোধ। পেজটাকে একটা লাইক দিবেন। ভালো থাকবেন সুস্থে থাকবেন। এবং সবাইকে ভালো রাখবেন। ধন্যবাদ।


NEXT PAGE


 

50% LikesVS
50% Dislikes