bangla dhadha question and answer

Bangla dhadha question and answer,টপ ১২৬ টি মজার ধাঁধা।


প্রিয় পাঠকগণ।আজকের এই পোস্টটি। খুব,যত্ন সহকারে বাছাই করা। বেস্ট,১২৬ টি bangla dhadha question and answer,দিয়ে সুন্দর করে সাজিয়েছি। তাই আসা করছি ,এই bangla dhadha question and answer,পরে আপনাকে ভীষণ ভালো লাগবে। ধন্যবাদ।


১ ভূত নয় প্রেত নয় রাত্রীকালে চরে সাপ নয়, ব্যাঙ নয় জলে ডিম পাড়ে। যক্ষ রক্ষ নয় রক্ত চুষে খায় চোর নয়, ডাকাত নয় তবু সবে মারতে করে ধায়।

 উত্তরঃ মশা।


 

২ বলুন তো কোন সে ফল মানব সংসারে বোটা কেটে দিলে তবে দিনে দিনে বাড়ে।

 উত্তরঃ মানুষ।


৩ সে পথে যাই না যেতে তবু যেতে হয় অসময়ে গেলে সবে করে হায় হায় সময়েতে নাহি গেলে শুন্য সেই পথে কাঁদকে প্রতিটি ক্ষণ অশেষ দুঃখতে।

 উত্তরঃ মৃত্যুপথ।


 ৪ চরণ তো নেই, তবু চলে বহুদুর সুপন্ডিত নয়, পেটে বিদ্যা ভরপুর। মুখ নেই তবু বলে হরেক বচন এ কথার মর্ম বোঝে সুপন্ডিতগণ।

 উত্তরঃ চিঠি।


 ৫ বিশ্বজোড়া খ্যাতি তাহার গড়ে প্রতিষ্ঠান নাচে-গানে অভিনয়ে, দক্ষ সে একজন।

 উত্তরঃ বিশ্ব কবি রবিন্দ্রনাথ ঠাকুর।


 ৬ আমার উচ্ছিষ্ট খায় সে আমারটা সে বলুন তো আমারা কারা?

 উত্তরঃ গাছ ও মানুষ।


 ৭ কালো হরিণ থাকে কালো পাহাড়ে দশ জনে ধরে আনে দুইজনে মারে।

 উত্তরঃ উঁকুন।


৮ হাত আছে পা নাই মাথা তার কাটা আস্ত মানুষ গিলে খায় বুক তার কাটা।

 উত্তরঃ জামা।


 ৯ সাগরে জন্ম, আমরা থাকি সবার ঘরে পানির পরশ পেলে যাই তবে মরে।

 উত্তরঃ লবন।


 ১০ দুই অক্ষরে নাম আমার, পৃথিবীতে থাকি শেষের অক্ষর বাদ দিলে সেই নামে ডাকি।

 উত্তরঃ কাক।


 ১১ দিন করি শতেক বিয়ে কাবিন নাহি হয় ছেলে মেয়ের মালিক আমি কোন কালে নয়।

 উত্তরঃ কাজী।


 ১২ বলেনতো দেখি- শিরোপতি অগ্নিকুন্ড পেট ভরা পানি। নাভি তার চুষে লোকে একি আজব কাহিনী!

 উত্তরঃ হুক্কা।


 ১৩ বলেনতো দেখি- কোন গ্রামে কোন দিন মানুষ ছিলনা, নাই, আর থাকবে না?

 উত্তরঃ টেলিগ্রাম।


 ১৪ বলেনতো দেখি- যেখানেতে জন্ম সেখানে নয় বাস। ভ্রমনেতে আসলে পরে ঘটায় সর্বনাস। এইটা কি?

 উত্তরঃ বাতাস।


১৫ তিন তের দিয়া বার নয় দিয়া মিলানী কর। আমার স্বামীর নামটি এই, পার করে দাও নাইওর যাই।

 উত্তরঃ ষাট ( ৩ x ১৩ + ১২ + ৯ = ৬০)।


 ১৬ গাছে নাই, পাতায় নাই ফুলে আছে, ফলে আছে।

 উত্তরঃ ’ল’ বর্ণ।


১৭ নয়া জামাই গোসল করে, টুপি থাকে মাথার পরে। একশ কলস পানি দাও তবু শুকনা তার গাও।

 উত্তরঃ কচু গাছ।


 ১৮ শুঁড় দিয়া কাজ করি, নাহি আমি হাতি। পরহিতে খাটি সদা, তবু খাই লাথি।

 উত্তরঃ ঢেঁকি।


 ১৯ এক ফকির একদিন ১০ টাকার লটারি কিনল। কিছুদিন পর তা থেকে ৫০ লাখ টাকা জিতল। এক মাস পর ঐ ফকিরটি এবার একটি সোনার থালা নিয়ে ভিক্ষায় বের হল। এই গল্পের শিক্ষানীয় দিকটি কি?

 উত্তরঃ কয়লা ধুলে ময়লা যায়না।


 ২০ মাটির হাড়ি কাঠের গাই (গাভী) বাছুর বিনা দুধ দোহাই।

 উত্তরঃ রসের হাড়ি।


২১ আলুও না বেগুনও না চিড়লে চোখ হয়।

 উত্তরঃ পটল।


২২ প্রান নাই তবু প্রাণীর সংগেই চলে, শব্দ নাই তবু প্রাণীর মতই বলে।

 উত্তরঃ ছায়া।


২৩ কোন গ্রামে মানুষ নেই?

 উত্তরঃ ওজন মাপার গ্রাম।


২৪ এক হাত গাছটা ফল ধরে পাঁচটা। বলুন তো কী?

 উত্তরঃ হাত।


২৫ হাত আছে পা নাই মাথা তার কাটা, আস্ত মানুষ গিলে খায় বুক তার কাটা। রাক্ষস নয় বলুন তো কী?

 উত্তরঃ শার্ট।


 ২৬ পাখা নাই উড়ে চলে মুখ নাই ডাকে বুক ছিড়ে আলো ছুটে চিন কী তারে?

 উত্তরঃ উড়োজাহাজ।


২৭ শুভ্র বসন দেহ তার, করে মানুষের অপকার আস্তে আস্তে তারে পুড়িয়ে মারে, তবু সে উঃ আঃ করে না। বলুন তো কী?

 উত্তরঃ সিগারেট।


২৮ এমন কোন্ জিনিস আছে যাহার ওজন নাই, ওজনহীন হলেও তারে সবাই দেখতে পাই। অদ্ভুত এই বস্তুটাকে রাখলে পূর্ণ পাত্রে, হালকা করে দিবেই দিবে দিনে কিংবা রাত্রে।

 উত্তরঃ ধোঁয়া।


২৯ উপরটা ফেলে দিয়ে ভিতরটা রান্না করে। তারপর ভিতরটা না খেয়ে ফেলে দেয় আর উপরটাই খায়। বলেন দেখি কোন জিনিস?

 উত্তরঃ মুরগি।


৩০ রহিমের বয়স ১২ বছর, করিমের বয়স ১২ বছর।৫ বছর পরে রহিমের বয়স হল ১৭ বছর এবং করিমের বয়স হল ১৮ বছর। কীভাবে?

 উত্তরঃ কেউ ১২ বছরে পড়লো, আর অন্যজনের শেষ হল।


 ৩১ কী এমন জিনিস যা আপনি করেন, কিন্তু তা আপনি স্পর্শ করতে পারেন না?

 উত্তরঃ টেনশন।



৩২ কালো ক্যানভাসে আঁকা ঝিকমিক লাইট, কনট্রাস্ট চেঞ্জ হয় মাঝে মাঝে হাইড।

 উত্তরঃ আকাশের তারা।


৩৩ ইংড়ি বিংড়ি তিংড়ি তাই পা আছে তার মাথা নাই।

 উত্তরঃ প্যান্ট।


 ৩৪  একজনা ছিল বসে, তারে শোয়াই দিল এসে। করল ঠকঠক, করল গটগট। তুলে রাখল শেষে।

 উত্তরঃ হুক্কা।


৩৫ একটি ঘরে ৫০টি শিয়াল এবং ১৮ টি মুরগী ছিল। সেখানে সব মিলিয়ে কতটি প্রানী ছিল?

 উত্তরঃ ৫০টি। কাড়ন সব মুরগি শেয়াল খেয়ে ফেলবে।


৩৬ একখান লম্বা, দুইখান গোল। চুলখান ধইরা টাইনা তোল।

 উত্তরঃ দাঁড়িপাল্লা।


 ৩৭ বাঘ নয় ভালুক নয়, না থাকে জঙ্গলে। মস্ত একখান হাঁ কইরা আস্তা মানুষ গিলে। যারে গিলে আর আসে না, থাইকা যায় পেটে। হাঙ্গর তিমিও নয় যে এটা ভাবেন মাথা ঘেঁটে।

 উত্তরঃ জামা।


৩৮ মরা ঘুঘু পইড়া থাকে, তাও ঘুঘু চাইয়া থাকে, ঘুঘুর দেহ, পাখনা। সব কিছুই শুকনা।

 উত্তরঃ খেলনা পাখি।


৩৯ মাঠের নিচে বাড়ি, পরনে লাল শাড়ি, বেড়ায় লোকের বাড়ি।

 উত্তরঃ লাল পিপড়া।


৪০ নিজের মুখে পরকে খাওয়াই, কখনো খাই না নিজে।

 উত্তরঃ চামচ।


 ৪১ শুঁড় দিয়া কাজ করি, নাহি আমি হাতি। পরহিতে খাটি সদা, তবু খাই লাথি।

 উত্তরঃ ঢেঁকি।


৪২ আল্লাহর কি কুদরত, লাঠির ভিতর শরবত।

 উত্তরঃ আখ।


 

√ ঝটপট প্রশ্ন ও উত্তর


৪৩  চটপট বলে ফেল, ঝাল কোন দেশ?

 উত্তরঃ শ্রীলঙ্কা।


৪৪ কোন বিলে জল নেই?

 উত্তরঃ টেবিল।


৪৫ কোন দেশে মাটি নেই?

 উত্তরঃ সন্দেশ।


 ৪৬ কোন টিয়া ডাকে না?

 উত্তরঃ খাটিয়া।


 ৪৭ কোন চিল উরে না?

 উত্তরঃ পাঁচিল।


৪৮ কোন মাছি উড়ে না?

 উত্তরঃ ঘামাচি।

 ৪৯  কোন বাসে মৌমাছি আসে?

 উত্তরঃ সুবাসে।


৫০ কোন পথে যেতে নেই?

 উত্তরঃ বিপথে।


 ৫১ কোন রাণী পুরুষও হয়?

 উত্তরঃ কেরানী।


৫২ কোন উল বোনে না?

 উত্তরঃ বাউল।


৫৩ কোন গান গাওয়া যায় না?

 উত্তরঃ বাগান।


৫৪ কোন টেবিলে পা নেই?

 উত্তরঃ টাইমটেবিল।


৫৫ কোন তাসা বাজে না?

 উত্তরঃ বাতাসা।


 ৫৬ কোন জিনিস টানলে কমে?

 উত্তরঃ সিগারেট।


৫৭ কোন জিনিস দিলে বাড়ে?

 উত্তরঃ বিদ্যা।


৫৮ কোন জিনিস কাটলে বাড়ে?

 উত্তরঃ পুকুর।


৫৯ কোন গ্রামে মানুষ নেই?

 উত্তরঃ টেলিগ্রাম।


 ৬০ কোন রাজধানী পাট ছাড়া?

 উত্তরঃ পাটনা।


৬১ কোন হাঁস ডিম পারে না?

 উত্তরঃ ইতিহাস।


 ৬২ কোন চোর চুরি করে না?

 উত্তরঃ এঁচোড়।


৬৩ কোন চুড়ি খেতে ভাল?

 উত্তরঃ খিচুড়ী।


৬৪ কোন জামা খায়ে দেয় না?

 উত্তরঃ পায়জামা।


 ৬৫ কোন ডিম দেখা যায় না?

 উত্তরঃ ঘোড়ার ডিম।


৬৬ কোন লেট ভাল লাগে?

 উত্তরঃ চকলেট।


 ৬৭ কোন গুণ পুড়িয়ে খায়?

 উত্তরঃ বেগুন।


৬৮ কোন ধান পড়তে লাগে?

 উত্তরঃ অভিধান।


৬৯ কোন বরের গায়ে গন্ধ?

 উত্তরঃ গোবর।


৭০ কোন ব্যাংকে টাকা রাখে না?

 উত্তরঃ ব্লাডব্যাংক।


 ৭১  কোন আম খায় না?

 উত্তরঃ বেয়াম।


৭২ কোন নুন গরম হয়?

 উত্তরঃ উনুন।


৭৩ কোন মা থাকে নাকের উপরে?

 উত্তরঃ চশমা। 


৭৪ কোন ছানা খায় না?

 উত্তরঃ বিছানা।


 ৭৫ কোন শহর কে খুললে মানা?

 উত্তরঃ খুলনা।


৭৬ কোন বর কে সবাই কে চায়?

 উত্তরঃ খবর।


 ৭৭ কোন ভাত সকালে দেখে?

 উত্তরঃ প্রভাত।


৭৮ কোন পান খায় না?

 উত্তরঃ জাপান।


৭৯ কোন গজ লিখতে লাগে?

 উত্তরঃ কাগজ।


৮০ কোন কোলে বসে না?

 উত্তরঃ নারকোল ।


 ৮১ কোন চা খায় না?

 উত্তরঃ খাঁচা।


৮২ কোন চা বসতে লাগে?

 উত্তরঃ মাচা।


৮৩ গানের কোনটা গাছে ধরে?

 উত্তরঃ তাল।


৮৪ কোন মূলের লাল ফুল?

 উত্তরঃ শিমূল।


৮৫ কোন বেশ সস্তা না?

 উত্তরঃ দরবেশ।


৮৬ কোন পাখি পড়লে ভয়?

 উত্তরঃ বাজ।


 ৮৭ কোন পাখি ডিম পাড়ে না?

 উত্তরঃ বাজ পাখি।


৮৮ কোন গাছের মাথায় জাটা?

 উত্তরঃ তাল গাছ।


৮৯ কোন গাছের মাথায় ঘা?

 উত্তরঃ সজনে।


 

৯০ কোন গাছে কাটে না?

 উত্তরঃ কলুর ঘানিগাছ।


৯১ কোন গাছের পাখা নেই?

 উত্তরঃ কাঁকড়া।


 ৯২ কোন গাছের পাতা নেই?

 উত্তরঃ সিজ।


৯৩ কোন আম করতে হয়?

 উত্তরঃ বেয়াম।


৯৪ কোন চুরি হাতে পারে না?

 উত্তরঃ খিচুড়ি।


৯৫ কোন পাখি উড়ে না?

 উত্তরঃ উটপাখি।


৯৬ কোন মাছ, মাছ নয়?

 উত্তরঃ চিংড়ি মাছ।


৯৭ কোন বাচ্চার মা নেই?

 উত্তরঃ চৌবাচ্চা।


৯৮  কোন সুখে সুখ নেই?

 উত্তরঃ অসুখে।


৯৯ কোন খানা দেখতে হয়?

 উত্তরঃ চিড়িয়াখানা।


১০০  কোন চায়ে ভীষন জাল?

 উত্তরঃ মরিচা।


১০১  কোন খালে জল আসে না?

 উত্তরঃ খাটালে।


১০২ কোন সাগরে জল নেই?

 উত্তরঃ বিদ্যাসাগর।


১০৩ কোন পাল ভাগ্য বলে?

 উত্তরঃ কপাল।


 ১০৪ কোন বলে শিত কাটে?

 উত্তরঃ কম্বল।


১০৫ কোন জল চোখে দেয়?

 উত্তরঃ কাজল।


১০৬ কোন গ্রামে রক্ত ঝরে?

 উত্তরঃ সংগ্রাম।


১০৭ কোন সুধা তরল নয়?

 উত্তরঃ বসুধা।


১০৮ কোন কাসে মেঘ বাসে?

 উত্তরঃ আকাশে।


১০৯ কোন কারে গান বাজে?

 উত্তরঃ স্পিকার।


১১০  কোন দুলি দোলে না?

 উত্তরঃ মাধুলি।


১১১ কোন রেটে আগুন লাগে?

 উত্তরঃ সিগারেটে।


১১২ কোন বাজী কেউ কেউ খায়?

 উত্তরঃ ডিগবাজি।


১১৩ কোন হাড় চোরকে দেয়?

 উত্তরঃ প্রহার।


১১৪ কোন পুলে ওষুধ হয়?

 উত্তরঃ পিপুল।


১১৫ কোন টক দেখালে হয়?

 উত্তরঃ নাটক।


১১৬ কোন টকে চড়ে মজা?

 উত্তরঃ ঘোটক।


১১৭ পৃথিবীর সর্বাপেক্ষা খর্বকায় জাতি কোনটি?

 উত্তরঃ পিগমি।


১১৮ একজন মানুষ দশম তলায় বসবাস করেন। রোজ সকালে তিনি লিফ্টে করে একতলায় নামেন এবং কাজে চলে যান। তিনি যদি বর্ষাকালে সন্ধ্যায় ফিরে আসেন অথবা যদি লিফ্টে অন্যান্য মানুষ থাকে, তাহলে তিনি সরাসরি লিফ্ট ব্যবহার করে দশম তলায় তার বাসায় চলে যান। অন্যথা, তিনি সিঁড়ি দিয়ে সপ্তম তলায় যান এবং বাকি তিনতলা হেটে উঠেন। কেন আপনি ব্যাখ্যা করতে পারেন?

 উত্তরঃ কারণ মানুষটি খাঁটো। তিনি উঠার সময় সাত তলার সুইচ টিপতে পারেন। দশম তলার সুইচ নাগাল পান না। সাত তালা পর্যন্ত সুইচ টিপতে পারেন।।


১১৯ খোলা প্রান্তরে দুজন লোক পরে আছে। একজন জীবিত অন্য জন মৃত।দুজনের কাধে একটি করে ব্যাগ রয়েছে। জীবিত জনের ব্যাগ খোলা এবং মৃত জনের ব্যাগ বন্ধ। বলতে হবে তাদের ব্যাগে কি ছিল ?

 উত্তরঃ প্যারাসুট।।


১২০  আটটি ৮ ব্যবহার করে কিভাবে ১০০০ তৈরি করা যাবে ? (শুধুমাত্র যোগ চিহ্ন ব্যবহার করতে হবে )

 উত্তরঃ ৮৮৮+৮৮+৮+৮+৮=১০০০।


 ১২১  আসাদ সাহেব খুন হয়েছেন। পুলিশ ইনস্পেক্টর সন্দেহভাজনদের জিজ্ঞাসাবাদ করছেন। ১ম সন্দেহভাজন (ভাগিনা) : আমি তখন রাত দশটার সংবাদ দেখছিলাম। সংবাদ মাত্র শুরু হয়েছিল। শিরোণামগুলো দেখাচ্ছিল। চতুর্থ শিরোণামে যখন ক্রিকেটের কথা বলছিল তখন হঠাত আমি একটা চিতকার শুনতে পাই। উঠে গিয়ে দেখি মামা উপুড় হয়ে মাটিতে পড়ে আছে। মাথা ফেটে রক্ত বের হচ্ছে। ২য় সন্দেহভাজন (ভাতিজা) : আমি তখন গল্পের বই পড়ছিলাম। হুমায়ূন আহমেদের আজ আমি কোথাও যাবো না। ১২ নম্বর শেষ করে পৃষ্ঠা উল্টিয়ে যখন ১৩ নম্বর পৃষ্ঠা পড়া শুরু করতে যাচ্ছিলাম, তখনই চিতকারটা শুনতে পাই। উঠে গিয়ে দেখি চাচা কাত হয়ে মাটিতে পড়ে আছে। মাথা ফেটে রক্ত বের হচ্ছে। আর আমার ফুফাতো ভাই তার পাশে হতভম্ভ হয়ে বসে আছে। ৩য় সন্দেহভাজন (লজিং মাস্টার) : আমি তখন নেট ব্রাউজ করছিলাম। অ্যাডবি ফ্ল্যাশ প্লেয়ারের নতুন ভার্সনটা আপগ্রেড করা ছিল না বলে ইউটিউব ভিডিও গুলো চালাতে পারছিলাম না। তাই গুগলে সার্চ দিয়ে সফটপিডিয়া থেকে ফ্ল্যাশ প্লেয়ারের লেটেস্ট ভার্সনটা যখন সবেমাত্র ইন্টারনেট ডাউনলোড ম্যানেজার দিয়ে ডাউনলোড করতে যাচ্ছিলাম, তখনই চিতকারটা আমার কানে আসে। ছুটে গিয়ে দেখি আংকেল সোজা হয়ে মাটিতে পড়ে আছে। মাথা ফেটে রক্ত বের হচ্ছে। তার ভাগিনা তার পাশে বসে আছে আর ভাতিজা তার পাশে হতভম্ব হয়ে দাঁড়িয়ে আছে। ইনস্পেক্টর তার নোটখাতায় এই তিন সন্দেহভাজনের একজনের নামের পাশে স্টার চিহ্ন দিলেন – অর্থাত্‍ একে আরো বেশি জিজ্ঞাসাবাদ করা দরকার। বলতে পারেন কোন ব্যক্তির নামের পাশে তিনি স্টার চিহ্ন দিয়েছিলেন এবং কেন?

 উত্তরঃ সন্দেহভাজন হল ভাতিজা।


১২২ আপনাকে আপনি দেখতে চান। কোন আয়না ব্যবহার না করে কি ভাবে সম্ভব।

 উত্তরঃ মোবাইলে ছবি তুলে।


১২৩  চারটি মেয়ে তাদের নিজেদের বয়সের গড় নির্ণয় করতে চাইছে। কিন্তু সমস্যা হল, তারা কেউই নিজের বয়স অন্য কাউকে জানাতে রাজি নয়। নিজের বয়স একে অন্যকে না জানিয়ে তারা কিভাবে তাদের বয়সের গড় নির্ণয় করতে পারবে?

 উত্তরঃ ১ম জন তার বয়সের সাথে অন্য কোনো একটি সংখ্যা যোগ করে যোগফলটি লিখে রাখবে। এভাবে ২য়, ৩য়, ৪র্থ জন নিজ নিজ বয়স যোগ করে যেতে থাকবে, এবং আগের ফল মুছে ফেলবে (না মুছলেও সমস্যা নেই)। সবশেষে ১ম জন আবার বাড়তি সংখ্যাটি বাদ দিয়ে দেবে। ফলে ৪জনের মোট বয়স পাওয়া যাবে। সেখান থেকে গড় বের করা যাবে, কেউই কারো বয়স জানবে না।অথবা খুবি সহজ অনেকভাবেই এই সমস্যার সমাধান করা যায়। যেমন মনে করেন একটা টাকা জমানোর মাটির ব্যংগের ভিতরে তারা কাউকে না দেখিয়ে যার যত বয়স তত টাকা ভরলো ( সব এক টাকার পয়সা ) তারপর সেই টা ভেংগে টোটাল থেকে চার দিয়ে ভাগ করলো।


১২৪  জেনিশার আব্বু তার প্রতি জন্মদিনে এক হাজার টাকা করে ব্যাংকে জমা করেন। কিন্তু জেনিশার যখন ১৮ বছর পূর্ন হল দেখা গেলো অ্যাকাউন্টে মাত্র চার হাজার টাকা জমা আছে। কারনটা কি?

 উত্তরঃ জেনিশা ২৯ ফেব্রুয়ারিতে জন্মগ্রহণ করেছিল।


১২৫ হাত দিয়া লারে ছাড়ে ছেব দিয়া খাড়া করে ফাক পাইলে ডুকাইয়া দেয বললেতো কি হতে পারে সেটা না পারলে সারেনডার করবেন ইটা।

 উত্তরঃ সুই ও সুতা।


 ১২৬  এক লোককে একটা ঘরে বন্দী করা হয়েছে। ঘরটি থেকে পলায়ন করার মাত্র ২টি রাস্তা আছে। এবং ২টি রাস্তাই হল ২টি দরজা। এই ২টি পথ ছাড়া তারা অন্য উপায় নেই। এইবার কথা হল ১ম দরজার বাহিরে এমন একটি ম্যাগনিফাইং গ্লাস সেট করা আছে। যেই গ্লাসের কারণে যে কেউ ঐ দরজা দিয়ে বের হতে চাইলে সূর্যের প্রচন্ড তাপে প্রতিফলিত হবার কারণে সে নিমিষেই মারা যাবে। আর ঐদিকে ২য় দরজায় প্রহরী হিসেবে আছে একটি ডায়নোসর। সেই মুখ দিয়ে বের হতে গেলেই ডায়নোসরের মুখের আগুনে পড়তে হবে ও মরতে হবে। প্রশ্ন হল লোকটা কোন দরজা দিয়ে বের হবে?

 উত্তরঃ প্রথম দরজা দিয়ে রাতের বেলা বেরুলেই চলবে।।


প্রিয় পাঠক। আজকের এই bangla dhadha question and answer, টি আসা করবো আপনাকে ভালো লেগেছে।তাই আপনার কাছে একটাই বিশেষ অনুরোধ। ভালো বেশ পেজটিতে একটা লাইক অবশ্যই দিবেন। আর হ্যা। আরো মজার মোজার মিষ্টি ধাঁধা গুলো পেতে নিচে নেক্সট বোতামে একটা ক্লিক করুন।ভালো থাকবেন সুস্থে থাকবেন।এবং সবাইকে ভালো রাখবেন। ধন্যবাদ।


Next Page 


 

50% LikesVS
50% Dislikes